Home / জাতীয় / করোনাভাইরাস প্র`তিরোধে আদা-রসুন ছাড়াও খেতে পারেন যেসব খাবার

করোনাভাইরাস প্র`তিরোধে আদা-রসুন ছাড়াও খেতে পারেন যেসব খাবার

করোনার সংক্রমণ দিন দিদন বেড়েই চলেছে। এ পরিস্থিতিতে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানোর বিকল্প নেই। সেক্ষেত্রে প্রতিদিনের খাদ্যতালিকায় এমন কিছু খাবার যোগ করতে পারেন যা শরীরে

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াবে।যেমন-সাইট্রাস ফল : ঠান্ডা-কাশিতে আক্রান্ত হলে অনেকেই সোজা

ভিটামিন সি খেতে শুরু করেন। কারণ একটাই, এটি রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে সাহায্য করে। এই ভিটামিন শরীরে শ্বেতকণিকার পরিমাণ বাড়ায় যা যেকোন ধরনের সংক্রমণ কমাতে ভূমিকা রাখে।

যদিও সব ধরনের সাইট্রাস জাতীয় ফলে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি পাওয়া যায় তারপরও ভিটামিন সি’র চাহিদা পূরণে কিছু ফল প্রতিদিনের

খাদ্যতালিকায় যোগ করতে পারেন। এর মধ্যে জাম্বুরা, কমলা, লেবু, লেবু জাতীয় ফল

উল্লেখযোগ্য। বিশেষজ্ঞদের মতে একজন পূর্ণবয়স্ক নারীর প্রতিদিন ৭৫ মিলিগ্রাম এবং একজন পুরুষের ৯০ মিলিগ্রাম ভিটামিন সি গ্রহণ করা

দরকার। যদি কেউ সাপ্লিমেন্ট গ্রহণ করেন তাহলে দিনে ২ হাজার মিলিগ্রামের বেশি গ্রহণ করা ঠিক

নয়।ব্রকলি : ব্রকলিতে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন ও খনিজ পাওয়া যায়। এছাড়া এতে থাকা ভিামিন এ, সি, ই, ফাইবার এবং অন্যান্য অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট

শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। রসুন : প্রাচীনকাল থেকে বিভিন্ন দেশে সংক্রমণ প্রতিরোধে রসুন ব্যবহৃত হয়ে আসছে। এটি উচ্চ রক্তচাপ

কমায়। সেই সঙ্গে হৃদযন্ত্র ভালো রাখে। এটি রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে দারুণ কার্যকর।আদা : আদা শরীরের প্রদাহ কমায় । গলা ব্যথা কমাতে ও

এটি বেশ উপকারী। এছাড়া এটি বমি বা বমি ভাব কমাতে বেশ কার্যকর।পালং শাক : এই শাকে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি রয়েছে। এছাড়া এতে থাকা

অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট এবং বিটা ক্যারোটিন সংক্রমণের সঙ্গে লড়াই করে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়।টক দই: রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে নিয়মিত টক দই খেতে পারেন। এতে থাকা ভিটামিন ডি

প্রাকৃতিকভাবে শরীরের শক্তি বাড়ায়। সেই সঙ্গে যেকোন ধরনের সংক্রমণের সঙ্গে লড়াই করতে ভূমিকা রাখে।কাজু বাদাম : সর্দি-কাশি, ঠান্ডা

প্রতিরোধে ভিটামিন সির পাশাপাশি ভিটামিন ই খেতে পারেন। এটি রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানোর অন্যতম চাবিকাঠি। এটি এমন একটি চর্বিযুক্ত

দ্রবণীয় ভিটামিন যার সঠিকভাবে শোষণের জন্য চর্বি উপস্থিতি প্রয়োজন। বাদামের মতো খাবারে এই ভিটামিন দ্বারা পূর্ণ থাকে। এতে স্বাস্থ্যকর ফ্যাটও

থাকে। এ কারণে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে এ সময়ে কাজু বাদাম খেতে পারেন। আধা কাপ কাজু

বাদামে দিনের চাহিদার শতভাগ ভিটামিন ই পাওয়া যাবে।কাঁচা হলুদ : বিভিন্ন গবেষনায় দেখা গেছে, কাঁচা হলুদে থাকা কারকুমিন উপাদান শরীরের

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। এটি অ্যান্টিভাইরাল হিসেবে কাজ করে।গ্রিন টি : গ্রিন চায়ে ফ্লাভনয়েড নামে এক ধরনের অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট থাকে যা রোগ

প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়।পেঁপে : একটি মাঝারি আকৃতির পেঁপেতে দিনের চাহিদার দ্বিগুণ ভিটামিন সি পাওয়া যায়। এতে হজম সহায়ক এক ধরনের

এনজাইম থাকে যাতে অ্যান্টি-ইনফ্ল্যামেটরী উপাদান পাওয়া যায়। এছাড়া এতে থাকা পর্যাপ্ত পরিমাণে পটাশিয়াম, ম্যাগনেশিয়াম এবং ফলিক অ্যাসিড

গোটা শরীরের জন্য উপকারী।মুরগীর মাংস : অসুস্থ রোগীদের মুরগীর স্যুপ খেতে দেয়া হয়। কারণ এটা খেলে রোগী সুস্থ অনুভব করেন। স্যুপ প্রদাহ কমায়,

শরীরের শক্তি বাড়ায়। এই সময় রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে মুরগী এবং টার্কির মাংস খেতে পারেন। এতে থাকা ভিটামিন বি ৬ রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে ভূমিকা রাখে।

About noman munshi

Check Also

ইসলামের জন্য মিডিয়া ছেড়ে দিয়েছেন জনপ্রিয় অভিনেত্রী সুজানা জাফর

জনপ্রিয় মডেল ও অভিনেত্রী সুজানা জাফর। ইসলামের জন্য সম্প্রতি বিনোদন জগত ছাড়ার ঘোষণা দিয়েছেন এই …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *